ঈদের পরে খুলবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ছুটি নিয়ে সর্বশেষ যা জানা গেল

ঈদের পরে খুলবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ছুটি নিয়ে সর্বশেষ যা জানা গেল

ঈদের পরে খুলবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান- করোনাভাই’রা’সের বিস্তার ঠেকাতে ২৬ মা’র্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। পরিস্থিতি বিবেচনা করে চলমান সাধারণ ছুটির পহেলা বৈশাখ পর্যন্ত বাড়ানো ‘হতে পারে। সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে এক অনির্ধারিত বৈঠকে এ বি’ষয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গেছে। বৈঠকে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল,পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নানসহ কয়েকজন মন্ত্রী উপস্থিত ছিলেন। আজ ম”ঙ্গলবার গণভবনে এ নিয়ে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত ‘হতে পারে। সেখানেই চূড়ান্ত সি’দ্ধান্ত নেয়া হবে। এই বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল, খাদ্যমন্ত্রী, জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী, ত্রাণ ও দুর্যোগ প্রতিমন্ত্রী উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিব পর্যায়ের কর্মকর্তারা এতে উপস্থিত থাকবেন। জানা গেছে, চলতি সাধারণ ছুটির মেয়াদ ৪ এপ্রিল শেষ হওয়ার কথা থাকলেও করোনা ভা’ইরা’সের ঝুঁ কির কথা মাথায় রেখে তা ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানোর সি’দ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

আগামী ১৫ এপ্রিল থেকে খুলবে সরকারি অফিস। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ১১ এপ্রিল খোলা কথা থাকলেও তা খুলবে রমজানের ঈদের পরে। কারণ হিসাবে তারা বলছেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার পাশাপাশি বন্ধ করা হয়েছে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের আবাসিক হলগু’লোও। এতে করে শিক্ষার্থীরা বাড়িতে ফিরে গিয়েছেন। এখন যদি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালু করা হয়, তাহলে সকল শিক্ষার্থীই সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে ফিরে আসবে, এতে করে ঝুঁ কি আরও বেড়ে যেতে পারে। তাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঈদুল ফিতরের পরে খোলার সি’দ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানা গেছে। সরকারি তহবিল থেকে দরিদ্রদের মাঝে অর্থ, খাদ্য বিতরণ যাতে যথাযথভাবে করা হয় সেই বি’ষয়ে দিকনির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আজ সকাল ১০ টায় করোনা ভা’ইরা’স প্রতিরোধে দেশব্যাপী চলমান কার্যক্রম সমন্বয়ের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ৬৪ জে’লার কর্মকর্তাদের স”ঙ্গে ভি’ডিও কনফারেন্সে সংযুক্ত হন। ঘরব ন্দি সময়টায় স্বাস্থ্য ভালো রাখতে এই ৩ খাবার করোনা পরিস্থিতিতে ঘরব ন্দি হাজার হাজার মানুষ। সং’ক’টপূর্ণ এই পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য ভালো রাখতে খাবার খাওয়ার

বিষয়ে আরও সচেতন ও যত্নশীল হতে হবে। এ ক্ষেত্রে কিছু খাবার রয়েছে, যা খেলে ভালো থাকবে আপনার ত্বক, বাড়বে হজমশক্তিও। আর আপনি যদি অতিরিক্ত ওজন কমিয়ে স্বাস্থ্য ভালো রাখতে চান, তবে সবার আগে প্রয়োজন একটি স্বাস্থ্যকর ও সুষম খাদ্যতালিকা। খাবার তালিকায় এমন খাবার রাখুন, যা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী ও ওজন কমাতে সহায়ক। তবে আমরা অনেকেই জানি না, আমাদের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে আসলে কী ধরনের খাবার খাওয়া প্রয়োজন। মনে রাখবেন– শুধু খাবার খেলেই হবে না, জানতে হবে কোন খাবারে রয়েছে আপনার শ রীর উপযোগী পর্যাপ্ত ভিটামিন, ফাইবার, প্রোটিনসহ অন্যান্য পুষ্টিগুণ। এ ক্ষেত্রে এই তিনটি খাবার আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার পাশাপাশি স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সহায়ক হবে: সবুজ শাকসবজি প্রতিদিন খাবারের তালিকায় রাখুন সবুজ শাকসবজি। সবুজ শাকসবজিতে অ্যান্টি-অক্সিডেন্টসমূহের পাশাপাশি ভিটামিন ও

খনিজ রয়েছে, যা আপনার শ রীরের রোগ প্র’তিরো’ধ ব্যবস্থা, ভালো চুল এবং ত্বকের জন্য অপরিহার্য। সবুজ সবজি ফাইবার সমৃদ্ধ হওয়ায় পেট ভরাও থাকে অনেকক্ষণ। ফলে খিদে কম লাগে আর ওজনও কমে। ডিম ডিম খেতে পছন্দ করেন না এমন মানুষ খুব কমই আছে। ডিমে আছে উচ্চ প্রোটিন ও সুস্থ ফ্যাট। ডিম ক্রমাগত এইচডিএল বা ‘ভালো’ কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ায়, যা অনেক রো’গের ঝুঁ কি কমিয়ে দিতে পারে। একটি গবেষণায় দেখা গেছে, সকালের নাস্তায় ডিম খেলে ক্যালোরি কম হয় এবং ওজন কমায়। বাদাম বাদামে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিডসহ স্বাস্থ্যকর চর্বি ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্টস। এটি মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বৃদ্ধি করে এবং হৃদরো গের বিরু দ্ধেও সুরক্ষা দেয়। কাজুবাদাম, আমন্ড, পেস্তা, আখরোট ইত্যাদি প্রচুর পরিমাণে পুষ্টির উৎস। বাদাম কম কার্বোহাইড্রেট খাবার।

সংবাদটি ফেসবুকে শেয়ার করুন