ঢাকা যাওয়া আসা নিয়ে শক্ত অবস্থান পুলিশের, নতুন ঘোষণা

জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঢাকায় আসা–যাওয়া বন্ধ
মহামারি করোনাভাইরাস প্রতিরোধে ঢাকা মহানগরীতে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ আসতে পারবেন না বা নগরীর বাইরে যেতে পারবেন না।

আজ রোববার ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গণমাধ্যম শাখা থেকে এ কথা জানানো হয়েছে।

ডিএমপি জানিয়েছে, এই পদক্ষেপের অংশ হিসেবে আজ রোববার থেকে রাজধানীর প্রবেশ ও বের হওয়ার পথে তল্লাশির ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। যাতে কোনো ব্যক্তি একান্ত জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঢাকা শহরে প্রবেশ বা ঢাকা শহর থেকে বাইরে যেতে না পারেন, তা নিশ্চিত করতেই তল্লাশির এই ব্যবস্থা।

এদিকে জরুরি সেবা ও পণ্য সরবরাহ কাজে নিয়োজিত যানবাহন এই নিয়ন্ত্রণের আওতামুক্ত থাকবে বলেও জানান তিনি।

করোনা ঠেকাতে নগরীতে এই নিয়ন্ত্রিত চলাচলের ব্যাপারে নাগরিকদের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেছে ডিএমপি।

আশঙ্কা করা হচ্ছে, ঈদ সামনে রেখে লোকজনের রাজধানী ত্যাগের ফলে করোনাভাইরাস গ্রাম পর্যায়ে ব্যাপকহারে ছড়িয়ে পড়তে পারে।
মহামারি করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) বিস্তার রোধকল্পে রোববার থেকে ঢাকা মহানগরীতে প্রবেশ ও বাহির পথে চেকপোস্ট ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

কোনো ব্যক্তি একান্ত জরুরি প্রয়োজন ব্যতীত ঢাকা শহরে প্রবেশ বা ঢাকা শহর থেকে বাহিরে যেতে না পারেন সেজন্য এ ব্যবস্থা নিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

ডিএমপি নিউজে বলা হয়, জরুরি সেবা ও পণ্য সরবরাহ কাজে নিয়োজিত যানবাহনসমূহ এই নিয়ন্ত্রণের আওতামুক্ত থাকবে।

এ অবস্থায় যথোপযুক্ত কারণ ব্যতীত কোনো ব্যক্তি যানবাহন চালনা করলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এই নিয়ন্ত্রিত চলাচলের ক্ষেত্রে সম্মানিত নাগরিকবৃন্দের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেছে ডিএমপি।

দৃশ্যত ঈদকে সামনে রেখে রাজধানী থেকে লোকজনের গ্রামের উদ্দেশে রওনা এবং অনেকের আবার রাজধানীতে প্রবেশ ঠেকাতে এই উদ্যোগ নিয়েছে ডিএমপি।

আশঙ্কা করা হচ্ছে, ঈদ সামনে রেখে লোকজনের রাজধানী ত্যাগের ফলে করোনাভাইরাস গ্রাম পর্যায়ে ব্যাপকহারে ছড়িয়ে পড়তে পারে।