বঙ্গোপসাগর লঘুচাপ, ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা, যেসব এলাকা ঝুকিতে

বঙ্গোপসাগর লঘুচাপ, ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা, যেসব এলাকা ঝুকিতে

চট্টগ্রামে সেনাবাহিনীর বিনামূল্যের ‘এক মিনিটের বাজার’
করোনা মোকাবিলায় নামলেন দুই হাজার নতুন চিকিৎসক
করোনায় মৃতদের সুন্দরবনে গায়েব করার তথ্য ভুয়া: সময় সংবাদকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর ও দক্ষিণ আন্দামান সাগরের কাছে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এ ফলে যেকোনো সময় গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়ে দিক পরিবর্তন করে ঘূর্ণিঝড়ের রূপ ধারণ করতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়াবিদরা।

আবহাওয়া বিশেষজ্ঞদের মতে, নিম্নচাপে পরিণত হয়ে এটি বঙ্গোপসাগর থেকে উত্তর-পশ্চিম দিকে এগিয়ে যেতে পারে।

আবহাওয়া গবেষক মোস্তফা কামাল জানান, লঘুচাপ থেকে যে নিম্নচাপটি হতে যাচ্ছে এটা শেষ পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। আগামী ১৯ কিংবা ২০ মে কোনো এক সময়ে উপকূলে আঘাত করতে পারে এটি।

তিনি জানান, ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইসিএমডব্লিউএফ) আবহাওয়া পূর্বাভাস মডেল নির্দেশ করছে যে, ঘূর্ণিঝড়টি ভারতের উড়িষ্যা উপকূলে আঘাত হানতে পারে। তবে অন্যান্য আবহাওয়ার মডেলগুলো ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশের উপকূলে আঘাত হানতে পারে বলে ইঙ্গিত দিচ্ছে।

আমেরিকার মডেল নির্দেশ করছে, ঘূর্ণিঝড়টি কক্সবাজার-চট্টগ্রাম উপকূলে আঘাত হানতে পারে। কানাডার মডেল বলছে, এটি সুন্দরবন উপকূলে আঘাত হানতে পারে।

আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ মনোয়ার হোসেন বলেন, এটি ঘূর্ণিঝড় হবে কি না, তা আজ শুক্রবার বোঝা যাবে। কারণ অনেক সময় নিম্নচাপেও সম্ভাব্য ঘূর্ণিঝড় শক্তি হারায়।

এদিকে আজ শুক্রবার দেশের কয়েকটি জেলায় বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ ভারি বৃষ্টি হতে পারে বলে আবহাওয়া পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে

সংবাদটি ফেসবুকে শেয়ার করুন