বিপদের সময় ১২ কোটি টাকা দিলেন অনন্ত জলিল

বিপদের সময় ১২ কোটি টাকা দিলেন অনন্ত জলিল

ঢাকাই সিনেমা’র আ’লোচিত নায়ক অনন্ত জলিলের জন্ম’দিন ছিল ১৭ এপ্রিল। করো’নার এই সময়ে ঘরেই কে’টেছে তার জন্ম’দিন।

২০১০ সালে ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত ‘খোঁজ-দ্য সার্চ’ সিনেমায় অ’ভিনয় করার মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে পা রাখেন অনন্ত। তার হাত ধরেই যাত্রা শুরু করে ডিজিটাল চলচ্চিত্র। এরপর একের পর এক চলচ্চিত্র উপহার দেন দর্শকদের

এই প্রযোজক নায়ক সমাজ সেবামূলক কাজেও উদারহস্ত। দুস্থদের সেবা ও সামাজিক দায়বদ্ধতার ক্ষেত্রে অনন্ত জলিল বরাবরই দৃষ্টান্ত স্থাপন করে যাচ্ছেন। করো’না মোকাবিলায় তিনি এর আগেও সাহায্য সহযোগিতা করেছেন

এদিকে জন্ম’দিনে অনন্ত জলিল এক ভিডিও বার্তায় জানান, সম্প্রতি তিনি তার কারখানার শ্রমিকদের ১২কোটি টাকা পারিশ্রমিক দিয়েছেন। করো’না পরিস্থিতির এই সময়ে পোশাক খাতের অনেক কোম্পানিই যখন কর্মীদের বেতন না দিয়ে বঞ্চিত করছে তখন অনন্ত জলিলের এই কাজকে অনেকেই সাধাবাদ জানিয়েছেন।

করো’নার কারণে বেকার হয়ে পড়া শিল্পীদের পাশেও দাঁড়িয়েছেন অনন্ত। চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির মাধ্যমে গত ২৭ মা’র্চ ২২০ জন বেকার শিল্পীর কাছে সহায়তা সামগ্রী হিসেবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, মাস্কসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য পৌঁছে দিয়েছেন। এরপর ২৯ মা’র্চ পরিচালক ও প্রযোজক সমিতির উদ্যোগে চলচ্চিত্রের আরো ২৬০ জন দুস্থ মানুষের পাশে দাঁড়ান অনন্ত।

এরপর বর্ষার অনুরোধে অনন্ত জলিল গত ৩ এপ্রিল ঢাকার মোহাম্ম’দপুরে তাদের বাসার সামনে ৩৫০ মানুষের হাতে তুলে দিয়েছেন খাদ্য ও জীবাণুনাশকসামগ্রী। পুরো আয়োজনটি সমন্বয় করেছে মোহাম্ম’দপুর থা’না। এগুলো বিতরণ করেছেন অনন্ত জলিল এবং তার ছোট্ট দুই ছে’লে আরিজ ও আবরার।

৫ এপ্রিল বর্ষার দেশেরবাড়ি সিরাজগঞ্জে ১০০০ পরিবারের মধ্যে একইভাবে সামগ্রী বিতরণ করবেন তার স্ত্রী’ চিত্রনায়িকা বর্ষা।

এছাড়াও তিনি তার কারখানার এলাকা হেমায়েতপুরের একটি ম’সজিদে ৫ লাখ টাকা দান করেছেন। সেখানেও দিয়েছেন খাদ্যসামগ্রী। দুটি অসহায় পরিবারের মাসিক খরচও বহন করার দায়িত্ব নিয়েছেন অনন্ত। তাদেরকে প্রতিমাসে ১০ হাজার টাকা করে দেন তিনি।

প্রসঙ্গত, অনন্ত জলিল ও লেভেল আর এ লেভেল করেছেন ঢাকার অক্সফোর্ড ইন্টারন্যাশনাল স্কুল থেকে। এরপর ম্যানচেস্টার থেকে বিবিএ এবং ফ্যাশন ডিজাইনিং পড়েন। শোনা যায় পাঁচ বছর বয়সে তার মা মা’রা যায়। মুন্সিগঞ্জ জে’লায় বাবার কাছে বড় হয়েছেন তিনি। ১৯৯৯ সালে গার্মেন্টস ব্যবসায়ী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন।

অনন্ত অ’ভিনীত সিনেমাগুলোর মধ্যে অন্যতম উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, ‘মোস্ট ওয়েলকাম’, ‘মোস্ট ওয়েলকাম টু’, ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা’, ‘দ্য স্পীড’, অনন্য মামুন পরিচালিত ‘মোস্ট ওয়েলকাম’।

বর্তমানে তিনি ই’রান-বাংলাদেশের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত ‘দিন-দ্য ডে’ সিনেমায় অ’ভিনয় করছেন। এই সিনেমাতে তার নায়িকা বর্ষা

সংবাদটি ফেসবুকে শেয়ার করুন




Do NOT follow this link or you will be banned from the site!