করোনার চিকিৎসা নিয়ে অবশেষে ভাল খবর দিল বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা

করোনার চিকিৎসা নিয়ে অবশেষে ভাল খবর দিল বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা

পৃথিবীতে ছুটে আসছে নিয়ন্ত্রণহীন চীনা রকেট
ধানক্ষেতে ফেলে মুক্তিযোদ্ধাকে কোপাল ওরা
মোদির সামনেই অমিত শাহকে তুলোধুনা মমতার
নিষেধাজ্ঞায় কষ্ট পেলেও ভাগ্য সহায় সাকিবের
প্রতিদিন ১৯০০ মেট্রিক টন চাল উৎপাদিত হচ্ছে
মহামারি করোনাভাইরাসে স্তব্ধ পুরো বিশ্ব। করোনার প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা। এর মধ্যে কিছু চিকিৎসায় করোনার তীব্রতা কমে যাচ্ছে সেই সাথে অসুস্থতার সময় কমে আসছে বলে দেখতে পেয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। মঙ্গলবার (১২ মে) সংস্থাটি জানিয়েছে, সম্ভাব্য চার থেকে পাঁচটি চিকিৎসা পদ্ধতি থেকে সবচেয়ে কার্যকরটি খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।

ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, করোনাভাইরাসের নিরাপদ ও কার্যকর টিকা, পরীক্ষা এবং প্রতিরোধের ওষুধ উদ্ভাবনে বৈশ্বিক তৎপরতার নেতৃত্ব দিচ্ছে জেনেভাভিত্তিক জাতিসংঘের সংস্থা ডব্লিউএইচও। শ্বাসতন্ত্রের অসুস্থতা তৈরি করা এই ভাইরাসটিতে বিশ্বজুড়ে প্রায় ৪২ লাখ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে ডব্লিউএইচও মুখপাত্র মার্গারেট হ্যারিস বলেন, ‘আমরা কিছু চিকিৎসা পেয়েছি, সেগুলো প্রাথমিক পর্যায়ে থাকলেও গবেষণায় দেখা যাচ্ছে, এগুলো রোগের তীব্রতা এবং অসুস্থতার মেয়াদ কমিয়ে দিতে পারে। কিন্তু এখন পর্যন্ত এমন কিছু পাওয়া যায়নি যা ভাইরাসটিকে মেরে ফেলতে কিংবা থামিয়ে দিতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা সম্ভাব্য ইতিবাচক তথ্য পাচ্ছি, তবে শতভাগ আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে এগুলো থেকে একটি বেছে নিতে আমাদের আরও তথ্য খতিয়ে দেখতে হবে।’

তবে করোনার কোনও ওষুধের নাম বলেননি ডব্লিউএইচও মুখপাত্র মার্গারেট হ্যারিস। তবে ওষুধ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান গিলাড সাইন্স বলছে, তাদের রেমডেসিভর ওষুধ করোনা রোগীদের চিকিৎসায় কার্যকর ভূমিকা রাখছে।

করোনার টিকা নিয়ে সতর্ক করে দিয়ে ডব্লিউএইচও কর্মকর্তা বলেন, ‘ভাইরাসটি খুবই কৌশলী। সে কারণে এর বিরুদ্ধে কোনও টিকা উদ্ভাবন বেশ কঠিন।’

বর্তমানে বিশ্বজুড়ে করোনার টিকা উদ্ভাবনে শতাধিক প্রচেষ্টা চলছে। এরমধ্যে বেশ কয়েকটি ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল পর্যায়ে রয়েছে। গত এপ্রিলে ডব্লিউএইচও জানিয়েছে, টিকা উদ্ভাবনে অন্তত ১২ মাস সময় লাগবে।

সংবাদটি ফেসবুকে শেয়ার করুন




Do NOT follow this link or you will be banned from the site!