ইন্টারভিউ বোর্ডে আপনার সংবেদনশীল বুদ্ধিমত্তা প্রদর্শন করুন

ইন্টারভিউ বোর্ডে আপনার সংবেদনশীল বুদ্ধিমত্তা প্রদর্শন করুন

যদি আপনি একটি চাকরির ইন্টারভিউ দিতে যান, তাহলে ইন্টারভিউ বোর্ডের কর্মকর্তাগণ আপনার কাজের দক্ষতা ও প্রযুক্তিগত জ্ঞান সম্পর্কে অবহিত হতে চান। তারা অবশ্যই চান যে, তাদের প্রতিষ্ঠানের জন্য সেরা প্রার্থীকে বেছে নিতে। যেহেতু ইন্টারভিউ বোর্ডের সময়টুকু যথেষ্ট নয় কর্মকর্তাদের বোঝানোর জন্য যে আপনার কতটুকু যোগ্যতা রয়েছে। তাই আপনার আচার ব্যবহার প্রমাণ করবে আপনি কতটুকু দক্ষ বা যোগ্য।

আপনি হয়তো অনেক কিছু জানেন, আপনি কাজে অনেক দক্ষ, কিন্তু ইন্টারভিউ বোর্ডের কর্মকর্তাদের সামনে আপনি তা প্রকাশ করতে পারছেন না। তাহলে আপনি অন্যান্য প্রার্থীদের চেয়ে পিছিয়ে পড়বেন। আপনাকে অবশ্যই ইন্টারভিউ বোর্ডে প্রমাণ করতে হবে যে, আপনি তাদের প্রতিষ্ঠানের জন্য যোগ্য ব্যক্তি।

আপনার দক্ষতা থাকার পাশাপাশি সংবেদনশীল বুদ্ধিমত্তাও থাকতে হবে; Source:news24.com

ইন্টারভিউ বোর্ডে অবশ্যই আপনাকে উপযুক্ত একজন প্রার্থীর মতো উপস্থাপনা করতে হবে, যেন ইন্টারভিউ বোর্ডের কর্মকর্তাগণ বুঝতে পারেন যে, আপনি তাদের প্রতিষ্ঠানের কাজগুলো দক্ষতার সাথে করতে পারবেন। অর্থাৎ কাজের যোগ্যতা থাকার পাশাপাশি আপনার সংবেদনশীল বুদ্ধি থাকারও প্রয়োজন আছে, যেন আপনার দক্ষতাগুলো আপনার বস অথবা ইন্টার্ভিউ বোর্ডের কর্মকর্তাদের সামনে তুলে ধরতে পারেন।

সংবেদনশীল বুদ্ধি কী?

সংবেদনশীল বুদ্ধি বলতে সাধারণত বোঝানো হয়ে থাকে, আপনার কাজের দক্ষতার পাশাপাশি আপনি কত সুন্দরভাবে কথার মাধ্যমে তা ফুটিয়ে তুলতে পারেন। অর্থাৎ আপনার দক্ষতা সম্পর্কে কর্মকর্তাদের সম্মুখে কথা বলার সুযোগ। এই গুণটি যার যত বেশি থাকবে, সে অন্যান্য প্রার্থীদের চেয়ে ততো বেশি এগিয়ে থাকবে। এটা হয়তো আপনার নিকট নিজের জন্য বাড়িয়ে বলা বা অস্বস্তিকর মনে হতে পারে।

ইন্টারভিউ বোর্ডের উপস্থাপনা নির্বাচিত হওয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ; Source: hrreview.co.uk

তবে এ কথাটি সত্যি যে, আপনার ইন্টারভিউ বা সাক্ষাৎকার আপনার চরিত্রের অন্তর্দৃষ্টি। আপনি যত ভালোভাবে উপস্থাপন করতে পারবেন, আপনার জীবন বৃত্তান্ত তুলে ধরতে পারবেন, আপনি তত বেশি আপনার যোগ্যতার প্রমাণ দিতে পারবেন। কারণ একটি প্রতিষ্ঠানের একজন কর্মকর্তা সব সময় আপনার মাঝে তার প্রতিষ্ঠানের ভবিষ্যতকে খুঁজবে। তাই প্রফেশনাল লাইফে সংবেদনশীল বুদ্ধি অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

আপনি যেভাবে সংবেদনশীল বুদ্ধি কাজে লাগাতে পারেন

ক্যান্ডিডেটস ডটকমের প্রতিষ্ঠাতা এলটি লাদিনো ব্রিসন বলেন, যোগ্য প্রার্থী কে হবে, তা একটি প্রতিষ্ঠানের পরিচালকের নিকট প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি কার সংবেদনশীল বুদ্ধি রয়েছে এটি সবচেয়ে বড় সূচক হিসেবে দেখা হয়। এছাড়াও তিনি আরও বলেন, বর্তমানে শুধুমাত্র কাজের ভালো দক্ষতা বা অভিজ্ঞতাই যথেষ্ট নয়। বরং কঠিন পরিস্থিতিতে আপনি পরিচালনা করতে কতটুকু সক্ষম তার সংক্ষিপ্ত উদাহরণগুলো স্পষ্ট করে বলা, পাশাপাশি আপনার চিন্তা ভাবনা বা প্রতিক্রিয়াগুলো নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের পরিচালকদের মধ্যে আপনার সম্পর্কে ভালো ধারণা তৈরি করতে পারে।

কর্মক্ষেত্রেও সংবেদনশীল বুদ্ধি প্রদর্শন করতে হবে

ক্যান্ডিডেটস ডটকমের প্রতিষ্ঠাতা এলটি লাদিনো ব্রিসন আরও বলেন, আপনি আপনার প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের নিকট যা উপস্থাপন করেছেন, আপনার কর্মক্ষেত্রের সেগুলো প্রতিফলিত করতে হবে। অন্যথায় আপনার কথা এবং কাজে যদি মিল না থাকে, তাহলে আপনি আপনার প্রতিষ্ঠানের নিকট বিশ্বাস যোগ্যতা হারাবেন। ধরুন, আপনি কোনো প্রতিষ্ঠানে চাকরির জন্য ইন্টারভিউ দিতে গেলেন।

আপনার উপস্থাপন করা দক্ষতাগুলো কাজের মাধ্যমেও প্রমাণ দিতে হবে; Source: independent.co.uk

সেখানে আপনাকে প্রশ্ন করা হলো যে, আপনি যদি একটি ভালো কোনো টিমের সদস্য হোন, তাহলে আপনি কীভাবে অন্যান্য কর্মচারীদের সাথে সেই টিমের পরিপূরক হবেন? সেক্ষেত্রে আপনাকে দেখাতে হবে যে, আপনি অন্যান্য কর্মচারীদের সাথে কীভাবে কাজ করবেন। উদাহরণস্বরূপ বলা যেতে পারে, সমস্যাগুলো তুলে ধরা বা সমস্যাগুলো সমাধান করার প্রক্রিয়াগুলো।

অপরদিকে আপনি যদি কোনো ম্যানেজমেন্ট বা ব্যবস্থাপনা পদের জন্য সাক্ষাৎকার দিতে যান, তাহলে আপনাকে প্রমাণ করতে হবে যে, আপনি কীভাবে আপনার কর্মীদের নিকট ভালো নেতা হবেন, অর্থাৎ আপনার কথা শুনে আপনার কর্মীরা কতটুকু উৎসাহ পাচ্ছে বা কতটুকু ভালো কাজ করছে এবং টিম পরিচালনা করছে। এই ধরনের প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, একটি সুখী ও সংস্কৃতি পরিবেশ বজায় রেখে কর্মীদের সাথে কাজ করা।

রেফারেন্স প্রদর্শন করুন

কর্মক্ষেত্রে আপনার সংবেদনশীল বুদ্ধিমত্তার পাশাপাশি আপনার দক্ষতা মূল্যায়নের আরও একটি দুর্দান্ত উপায় হলো প্রাক্তন সহকর্মী এবং প্রতিষ্ঠানের পরিচালকের নিকট থেকে একটি রেফারেন্স লেটার গ্রহণ করা। সেখানে আপনার পূর্বের কাজ করার দক্ষতা এবং সংবেদনশীল বুদ্ধিমত্তার বিবরণ থাকবে। এতে করে আপনি যে প্রতিষ্ঠানে কাজ করতে চাচ্ছেন, সেই প্রতিষ্ঠানের পরিচালক বা কর্মকর্তারা তাদের নিকট থেকে আপনার দক্ষতা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

রেফারেন্স লেটার থাকা প্রার্থীর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ; Source: dreamstime.com

তবে আপনার রেফারেন্স লেটার প্রদর্শন করার পূর্বে অবশ্যই খেয়াল রাখবেন আপনি যাদের রেফারেন্স দিচ্ছেন তাদের সাথে আপনার কাজের অভিজ্ঞতা কেমন বা তারা আপনার সম্পর্কে ভালো রিপোর্ট প্রদান করবে কিনা। নতুন কোনো প্রতিষ্ঠানে কাজ পাওয়ার জন্য একটি রেফারেন্স লেটার খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এতে করে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান আপনার কাজের দক্ষতা সম্পর্কে খুব সহজেই ভালোভাবে জানতে পারবে এবং এই রেফারেন্সের কারণে আপনার প্রতি তাদের ভালো বিশ্বাস জন্মাবে। যা আপনাকে তাদের প্রতিষ্ঠানে কাজ করার সহায়ক হিসেবে মূল্যায়ন করবে।

ইন্টারভিউ পূর্ববর্তী প্রস্তুতি

আপনার সাক্ষাৎকার এমন হওয়া উচিত, যেন ইন্টারভিউ বোর্ডের কর্মকর্তাদের মনে হয় আপনি তাদের নিকট সাক্ষাৎ দিতে আসতে খুবই আগ্রহী ছিলেন। আপনি পূর্ব থেকেই প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে ভালো করে স্টাডি করে নিতে পারেন, যা আপনার ইন্টারভিউ বোর্ডে আপনাকে যোগ্য প্রার্থী হিসেবে প্রমাণ করতে সাহায্য করবে।

নেতিবাচক মনোভাব প্রকাশ না করে আত্মবিশ্বাস রাখাটা খুবই জরুরি

বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া বা অনলাইন থেকে আপনি ইন্টারভিউ পূর্ববর্তী সময়ে আপনাকে কীভাবে প্রস্তুতি নেওয়া উচিত, সে সম্পর্কে অনেক লেখা পাবেন। সাধারণত আপনি কোন ধরনের প্রতিষ্ঠানে ইন্টারভিউ দিতে যাচ্ছেন বা আপনি কী ধরনের কাজ করতে ইচ্ছুক, সে ধরনের প্রতিষ্ঠানের উপর স্টাডি করে সাক্ষাৎকারের জন্য প্রস্তুতি নিতে পারেন। সর্বোপরি সাক্ষাৎকারে কোনো ধরনের নেতিবাচক মানসিকতা প্রকাশ করা যাবে না।

সংবাদটি ফেসবুকে শেয়ার করুন




Do NOT follow this link or you will be banned from the site!